জল ছাড়া কোনো জীবন বাঁচতে পারে না, বা অন্তত আমরা এমনটাই জানতাম। আমরা এই নীল গ্রহে বাস করি, এবং এটি একটি বিশাল, নিশ্চল মহাশূন্যের ভিতর একটি বিশেষ গ্রহ, তার কারণ হল, এটি জীবনকে সহায়তা করার প্রয়োজনীয় শর্তগুলি পূরণ করে। সমস্ত কোষ, প্রাণী ও উদ্ভিদ উভয়ের মধ্যেই, প্রচুর পরিমাণে, প্রায় 75%, জল থাকে। এবং এই কোষগুলির বেঁচে থাকার জন্য তাদের প্রচুর পরিমাণে জল প্রয়োজন। নিঃসন্দেহে, জল এমনই একটি অত্যাবশ্যক উপাদান যা সবকিছুরই একটি অংশ, এবং এটি আমাদের জানা এই বিশ্বকে আকার প্রদান করে। এই কারণে, আমাদের প্রায় ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট সম্পর্কে কথা বলতে হবে।

ওয়াটার ফুটপ্রিন্টটি এতটা গুরুত্বপূর্ণ কেন?

আমরা প্রতিদিন যে পণ্যগুলি ভোগ করি, তাদের মধ্যে স্বাদু জল সবচেয়ে ব্যবহৃত স্বাভাবিক সম্পদ। কিন্তু, আমরা কি জানি এই খাবারগুলোর প্রতিটি তৈরী করতে কতটা জল প্রয়োজন? এইখানেই ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট আলোকপাত করে এবং প্রতিটি পণ্যের জন্য ব্যবহৃত জলের পরিমাণ সম্পর্কে সন্দেহগুলিকে পরিষ্কার করে

University of Twente (নেদারল্যান্ড)-এর গবেষক, Arjen Hoekstra এবং Mesfin Mekonnen, 2002 সালে এই মতবাদটি গড়ে তোলেন। তাদের উদ্দেশ্য ছিল, প্রতিদিনের জিনিসগুলির মধ্যে থাকা জলের পরিমাণে এই প্রভাবটি দেখানো।

জলবায়ু পরিবর্তন এবং জনসংখ্যা বৃদ্ধির বর্তমান প্রসঙ্গে জল সম্পদের উপর বড় চাপ রয়েছে। অর্থাৎ গুরুতর ও ধারাবাহিকভাবেস্বাদু জলের সহজলভ্যতা হ্রাস পাচ্ছেবর্তমানে, সম্পদের অভাব 10 জন লোকের মধ্যে 4 জনকে প্রভাবিত করে, এবং 2025 সালের মধ্যে এটি জনসংখ্যার 67%-এর উপর প্রভাব ফেলতে পারে। এই কারণে, জলের গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতন হওয়াা প্রয়োজন। একটি জটিল ভবিষ্যতে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা উন্নত করার জন্য সম্পদগুলির ব্যবহার হ্রাস করা আবশ্যক।

Marc Buckley, Innovation & Agriculture, Food & Beverage Expert Network of the World Economic Forum (বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের উদ্যোগ ও কৃষিকাজ, খাদ্য ও পানীয় বিশেষজ্ঞ নেটওয়ার্ক)-এর সদস্য এবং জাতিসংঘের 17টি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যের (SDG) বিখ্যাত সমর্থনকারীদের মধ্যে একজন। তিনি আশ্বস্ত করেছেন যে, “জলই হল আমাদের কাছে থাকা সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদ”। কেননা এই সম্পদটি একটি বিকল্প পথ, এবং সব SDG-গুলিকে সরাসরি বা পরোক্ষভাবে প্রভাবিত করে। এই কারণে, ভাল ধরণের জলের অভাবের সাথে সম্পর্কিত সমস্যাগুলি সমাধান করা প্রতিটি SDG-এর বর্তমান পরিস্থিতি উন্নত করবে।

বর্তমানে, সম্পদের অভাব 10 জন লোকের মধ্যে 4 জনকে
প্রভাবিত করে,
এবং 2025 সালের মধ্যে এটি জনসংখ্যার
67%-এর উপর প্রভাব ফেলতে পারে।

QatiumIntelligent Assistant ( বুধিমান সহায়ককারী)

আমরা কিভাবে ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট গণনা করতে পারি?

কোনো পণ্যের ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট হল সেই পরিমাণ জল, যা উৎপাদনের সব পর্যায়ে ভোগ এবং/অথবা দূষিত করা হয় একে আয়তনের এককে (লিটার, ঘন মিটার, গ্যালন…) পরিমাপ করা হয়, সেই প্রভাবের একটি ধারণা দিয়ে যে কোনো একটি নির্দিষ্ট জিনিসের জন্য স্বাদু জল প্রয়োজন। সুতরাং, এটি উৎপাদনে সরাসরি ব্যবহৃত, এবং এর কাঁচামালে পরোক্ষভাবে ব্যবহৃত জলকে বিবেচনা করে।

উদাহরণস্বরূপ, আমরা 2 পাউন্ড গরুর মাংসের ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট পরিমাপ করতে চাইলে, আমরা শুধু যে প্রাণীটির দ্বারা ভক্ষণ করা জলই বিবেচনা করব তা নয়, এমনকি খাবারটি তৈরী করতে প্রয়োজনীয় জল এবং তা করার জন্য দূষিত জলকেও ধরতে হবে। তারপরে সেই মাংসকে সুপারমার্কেটে পরিবহন করতে প্রয়োজনীয় জল, ফ্রিজের ভিতরে থাকা জল ইত্যাদিও আমাদের যোগ করতে হবে।

ওয়াটার ফুটপ্রিন্টের শ্রেণীবিভাগ

একটি পণ্য উৎপাদনে ব্যবহৃত জলের উৎসের ভিত্তিতে তিনটি শ্রেণী রয়েছে। 2008 সালে অধ্যাপক Hoekstra ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট নেটওয়ার্ক-এর উপর এই প্রস্তাবটি করেন।

  • সবুজ ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট: একটি পণ্য উৎপাদনে ব্যবহৃত জলের অধঃক্ষেপণ এবং বাষ্পীভবন। একটি ধানের জমির ক্ষেত্রে, এটি হবে জমিতে সরাসরি পড়া বৃষ্টিপাত এবং যে অংশটি বাষ্পীভূত হয়ে যায় সেটি।
  • নীল ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট: কোন কেন্দ্র বা পরিকাঠামোর নিয়ন্ত্রণ করা প্রাকৃতিক বা কৃত্রিম উৎসের থেকে পাওয়া পৃষ্ঠতল বা ভূগর্ভস্থ জল। বেশিরভাগ পণ্যের ক্ষেত্রেই এটি সাধারণত বৃহত্তম অংশ। এটি ধানের জমির ক্ষেত্রে, এটি হবে গর্ত থেকে বা পাম্প করে সেচন করা জল।
  • ধূসর ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট: উৎপাদন প্রক্রিয়ার সময় তৈরী হওয়া দূষণ একত্রিত করতে প্রয়োজনীয় সম্পদের পরিমাণ। একটি ধানের জমির ক্ষেত্রে, এটি হবে উৎপাদনের (সার, উদ্ভিদনাশক, কীটনাশক, ইত্যাদি) সময় ব্যবহৃত রাসায়নিক পদার্থগুলি একত্রিত করতে পরিবেশের যে পরিমাণ জল প্রয়োজন হয়।
ওয়াটার-ফুটপ্রিন্ট-কফি-গ্যালন

প্রতি কাপ কফির ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট প্রায় 52 গ্যালন।

আমরা কিভাবে ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট কম করতে পারি?

19শ শতকের বৃটিশ পদার্থবিদ-গণিতজ্ঞ William Thomas Kelvin-এর বিখ্যাত বাক্যাংশটি কোনো প্রক্রিয়া উন্নত করতে পরিমাপ করার গুরুত্বকে হাইলাইট করে:

“আমি প্রায়ই বলি যে, আপনি যা নিয়ে কথা বলছেন সেটি আপনি পরিমাপ করতে পারলে, আর তাকে সংখ্যায় প্রকাশ করতে পারলে, তাহলে আপনি সেটা সম্বন্ধে কিছু জানেন; কিন্তু আপনি সেটি পরিমাপ না করতে পারলে, তাকে সংখ্যায় প্রকাশ না করতে পারলে, তাহলে আপনার জ্ঞান দুর্বল ও অসন্তোষজনক হয়ে পড়ে; এটি হয়তো জ্ঞানের সূচনা হতে পারে, কিন্তু আপনার মস্তিষ্কে, বিষয়টি যাই হোক না কেন, আপনি বিজ্ঞানের পর্যায়ে আদৌ অগ্রগতি করেন নি।”

লর্ড Kelvin, 1883

এই কারণে, ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট হ্রাস করার প্রথম ধাপ হল সেটা জানা এবং হিসাব করা

কিন্তু ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট হ্রাস করার আরও সুপারিশও রয়েছে:

  1. নির্দিষ্ট পণ্যের ভোগ হ্রাস করা। উদাহরণস্বরূপ, আরও বেশি ফল, সবজি, ও তাজা খাবার খান।
  2. স্থানীয় পণ্য খান। স্থানীয় কৃষকদের থেকে ক্রয় করলে পণ্যের পরোক্ষ জল প্রভাব হ্রাস পায়।
  3. মৌসুমি-নয় এমন পণ্য ক্রয় করবেন না। পণ্য সংরক্ষণ বা আমদানি করলে পণ্যের ওয়াটার ফুটপ্রিন্ট বৃদ্ধি পায়।
  4. খাবার অপচয় করা এড়িয়ে যান। দায়িত্বের সাথে ক্রয় করুন।
  5. জল খরচ এবং দূষণ হ্রাস করতে চক্রাকার অর্থনীতি বাড়িয়ে তুলুন ও প্রচার করুন। পুনুরায় ব্যবহার করা এবং খরচ হ্রাস করার মধ্যে জল সম্পদের ব্যবহার হ্রাস করায় একটি ইতিবাচক প্রভাব রয়েছে।
  6. জলের দায়িত্বের সাথে ব্যবহারপ্রচার করুন। উদাহরণস্বরূপ, স্নান করা এবং গোসল করা এড়ানো প্রচার করা।
  7. কলের জল পান করুনবোতলের জলে কলের জলের চেয়ে পরিবেশগত প্রভাব আরও বেশি।